[ New ] Class 9 Model Activity Task Life Science Part 6 Answers

3260
[ New ] Class 9 Model Activity Task Life Science Part 6 Answers
সরকারি সুবিধা,সরকারি প্রকল্প, শিক্ষামূলক পোস্ট,সমস্ত ধরনের অফার,ইনকাম সম্পর্কিত পোস্ট (Online Shikkha Site টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হন )Click Here

[ New ] Class 9 Model Activity Task Life Science Part 6 Answers 2021 | Class 9 Life Science | Model Activity Task Life Science Class 9 Part 6 Part 5 Part 4 | মডেল আক্টিভিটি টাস্ক Class 9 Life Science Answer 2021 | মডেল আক্টিভিটি টাস্ক Class 9 জীবন বিজ্ঞান উত্তর |

তোমরা যারা ক্লাস 9 এ পড়াশুনা করছো , তোমাদের জন্য এই বছর অর্থাৎ ( ২০২১ সাল ) জন্য Model Activity Task দেওয়া হয়েছে।  

তোমার ঘরে বসে এই Model Activity Task এর উত্তর গুলো তৈরি করো।  তারপর আমার দেওয়া উত্তরগুলো দেখে নাও ।

Model Activity Task Class 9 Pdf All SubjectAnswer Pdf

[ 3rd Part ] Model Activity Task Class 9 Life Science Part 6

১ ) প্রতিটি প্রশ্নের সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে তার ক্রমিক সংখ্যাসহ বাক্যটি সম্পূর্ণ করে লেখ । 

১.১ ) বাষ্পমোচন সংক্রান্ত সঠিক বক্তব্যটি নিরূপণ করো – 

উঃ – খ ) বায়ুপ্রবাহ বৃদ্ধি পেলে বাষ্পমোচন এর হার বৃদ্ধি পায় । 

১.২ ) নিচের যে জোড়াটি সঠিক তা স্থির করো – 

উঃ – গ ) রসের উৎস্রোত – জাইলেম কলা । 

১.৩ ) নিচের যে বিশেষ সংযোগী কলাকে রিজার্ভ পেসমেকার বলা হয় সেটিকে শনাক্ত করো – 

উঃ – ঘ ) AV নোড।  

২ ) শূন্যস্থান পূরণ করো । 

২.১ ) সূর্যালোকের ______ কণা শোষণ করে ক্লোরোফিল সক্রিয় হয় । 

উঃ – ফোটন । 

২.২ ) A গ্রুপের ব্যক্তির রক্তে _______অ্যাগ্লুটিনিন থাকে । 

উঃ – বিটা । 

২.৩ ) পেঁপে গাছের তরুক্ষীরে ______ নামক উৎসেচক থাকে যা প্রোটিন পরিপাকে সাহায্য করে । 

উঃ – প্যাপাইন । 

৩ ) দুটি বা তিনটি বাক্যে উত্তর দাও । 

৩.১ ) মুখবিবরে কিভাবে শর্করা জাতীয় খাদ্যের পরিপাক হয় তা বিশ্লেষণ করো । 

উঃ – মুখগহ্বরে শর্করা জাতীয় খাদ্য লালারসে উপস্থিত টায়ালিন উৎসেচক এর সঙ্গে নিঃসৃত হয় মলটোজে পরিণত হয় । এরপর সামান্য পরিমাণ লালারসের মলটোজ উৎসেচক ক্রিয়া করে খাদ্যবস্তুকে সরল শর্করা গ্লুকোজে পরিণত করে । 

৩.২ ) কোশ থেকে কোশে পরিবহনে ব্যাপনের ভূমিকা ব্যাখ্যা করো । 

উঃ –  i ) মূলরোম মাটি থেকে কৈশিক জল আত্মাভূতি প্রক্রিয়ায় শুষে নেয় এবং এই শুষে নেওয়া জল কোষ প্রাচীরের সমস্ত অংশে ব্যাপন প্রক্রিয়ায় সমানভাবে ছড়িয়ে পড়ে । 

ii ) শ্বসন ও সালোকসংশ্লেষের জন্য প্রয়োজনীয় অক্সিজেন এবং কার্বন ডাই অক্সাইড গ্যাসের কোশান্তর  পরিবহন সম্পূর্ণরূপে ব্যাপনের ওপর নির্ভরশীল । 

৪ ) নিচের প্রশ্নটির উত্তর দাও । 

৪.১ ) মানবদেহে মূত্র সৃষ্টিতে নেফ্রনের ভূমিকা আলোচনা করো । শ্বেত রক্ত কণিকার দুটি কাজ উল্লেখ করো । 

উঃ – বিজ্ঞানী কুশনীর মত অনুযায়ী সাধারণত তিনটি পদ্ধতির মাধ্যমে মানবদেহে মূত্র সৃষ্টি হয় যথা – 

i ) পরাপরিস্রাবণ

ii ) পুনর্বিশেষণ 

iii ) ক্ষরণ পদ্ধতি

i ) পরাপরিস্রাবণ – গ্লোমেরুলার রক্তচাপ ও রক্তের অভিস্রবণ চাপের পার্থক্য বৃক্কীয় ধমনী থেকে জল, লবণ, শর্করা, ইউরিয়া, ইউরিক অ্যাসিড প্রভৃতিকে পরিস্রাবিত করে বাওম্যান’ ক্যাপসুল বিবরে  গ্লোমেরুলাসের পরিস্রাবক তরল হিসাবে জমা করে।  

ii ) পুনর্বিশেষণ – পরিস্রাবিত তরল বৃক্কীয় নালি পথে যাওয়ার সময় নালীগাত্রস্ত কোশ ঐ তরল থেকে সম্ভাব্য পরিমাণ জলের সঙ্গে শর্করা, লবণ, অ্যামাইনো এসিড ও কিছুটা ইউরিয়া, ইউরিক অ্যাসিড প্রভৃতি শোষণ করে দেহে ফিরিয়ে দেয় । 

iii ) ক্ষরণ পদ্ধতি – বিজাতীয় বস্তু ও বিভিন্ন মৌলের আয়ন ক্ষরিত হয়ে নালিকাস্থিত তরলে মিশ্রিত হয় । এই তরলই প্রকৃতপক্ষে মূত্র । মূত্র সংগ্রাহক নালিকার মাধ্যমে গাবিনীতে প্রবেশ করে ও পরিশেষে মূত্র থলিতে সঞ্চিত হয় । 

শ্বেত রক্ত কণিকার দুটি কাজ – 

i ) শ্বেত রক্তকণিকার ইউসিনোফিল, হিস্টামিন শোষণ করে অ্যালার্জি প্রতিরোধ করে । 

ii ) শ্বেত রক্তকণিকার নিউট্রোফিল রোগজীবাণুকে ভক্ষণ করে ধ্বংস করে । 

[ September 2021 ] Class 9 Life Science Part 6 | 3rd Part Class 9 Life Science 2021 |

মডেল আক্টিভিটি টাস্ক Class 9 জীবন বিজ্ঞান Part 5 ( August )

১ ) প্রতিটি প্রশ্নের সঠিক উত্তরটি নির্বাচন করে তার ক্রমিক সংখ্যা সহ বাক্যটি সম্পূর্ণ করে লেখ। 

১.১ ) যে জোড়াটি সঠিক নয় সেটি নির্বাচন করো। 

উঃ – ঘ ) অরনিথিন চক্র – এমোনিয়া সংশ্লেষ। 

১.২ ) সঠিক বক্তব্যটি নিরূপণ করো। 

উঃ – গ ) লিম্ফোসাইট এন্টিবডি সংশ্লেষ করে রোগ প্রতিরোধে সাহায্য করে। 

১.৩ ) প্রজাপতির রেচন অঙ্গটি চিহ্নিত করো। 

উঃ – ম্যালপিজিয়ান নালিকা। 

২ ) A – স্তম্ভে দেওয়া শব্দের সঙ্গে B – স্তম্ভে দেওয়া সর্বপেক্ষা উপযুক্ত শব্দটির সমতা বিধান করে উভয় স্তম্ভের ক্রমিক নম্বর উল্লেখ সহ সঠিক জোড়াটি পুনরায় লেখ। 

উঃ –

A স্তম্ভB স্তম্ভ
২.১ ) আথেরোস্কেলোসিস গ ) বিপাকীয় সমস্যা জনিত রোগ
২.২ ) পতঙ্গক ) ট্রাকিয়া
২.৩ ) পত্ররন্ধ্রখ ) রক্ষীকোষ
ঘ ) ফুলকা

৩ ) দুটি বা তিনটি বাক্যে উত্তর দাও :

৩.১ ) উদ্ভিদের ক্ষেত্রে পরজীবীয় ও মিথোজীবীয় পুষ্টির দুটি পার্থক্য উল্লেখ করো। 

উঃ –

পরজীবীয় পুষ্টিমিথোজীবীয় পুষ্টি
i ) এই পুষ্টি পদ্ধতিতে উদ্ভিদ অন্য উদ্ভিদ থেকে খাদ্যরস শোষণ করে পুষ্টি সাধন করে। i ) এই পুষ্টি পদ্ধতিতে দুটি উদ্ভিদ একত্রে বসবাস করে পুষ্টি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে। 
ii ) পরজীবীয় পুষ্টি সম্পন্ন জীবকে পরজীবী বলে।  যেমন – স্বর্ণলতা, রাফলেশিয়া। ii ) মিথোজীবীয় পুষ্টি সম্পূর্ণ কারি জীবকে মৃতজীবী বলে। যেমন – লাইকেন।

৩.২ ) সৌরশক্তির আবদ্ধ করণ ও রুপান্তরে সালোকসংশ্লেষের ভূমিকা ব্যাখ্যা করো। 

উঃ – সূর্যের আলোকরশ্মিতে অসংখ্য অদৃশ্য শক্তিধর ফোটন কণা থাকে। সূর্যালোক সবুজ পাতায় আপতিত হলে ক্লোরোফিল ফোটন কণা শোষণ করে উত্তেজিত হয় এবং ক্লোরোফিলের হাইড্রোজের  কক্ষপথ থেকে উচ্চশক্তিসম্পন্ন ইলেকট্রন নির্গত হয়। ফলে কিছু শক্তি মুক্ত হয়। 

এই মুক্ত শক্তির প্রভাবে ADP, ATP অণুর সৃষ্টি হয়। ফলে সৌরশক্তি রাসায়নিক শক্তিতে পরিণত হয়। এই ভাবেই ভাবেই সৌরশক্তির আবদ্ধকরণ ও রূপান্তর ঘটে সালোকসংশ্লেষ এর প্রভাবে। 

৪ ) নিচের প্রশ্নটির উত্তর দাও :

৪.১ ) উদ্ভিদের দেহে কোন নির্দিষ্ট রেচন অঙ্গ থাকে না তাহলে উদ্ভিদ কিভাবে রেচন পদার্থ ত্যাগ করে বলে তোমার মনে হয়  ? রক্ত তঞ্চন কিভাবে ঘটে ব্যাখ্যা করো। 

উঃ – উদ্ভিদের কোন নির্দিষ্ট রেচন অঙ্গ থাকে না কিন্তু উদ্ভিদরা সাধারণত বাকলমোচন, পত্রমোচন ও ফলমোচন পদ্ধতিতে তাদের দেহ থেকে রেচন পদার্থ ত্যাগ করে। 

বাকলমোচন – কোন কোন উদ্ভিদ যেমন – পেয়ারা, অর্জুন, ইউক্যালিপটাস তাদের দেহের বাকল বা ছাল ত্যাগের মাধ্যমে রেচন পদার্থ দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন করে। 

পত্রমোচন – চিরহরিৎ বৃক্ষ ( যেমন – আম, জাম ) এবং পর্ণমোচী উদ্ভিদ ( যেমন – শিমুল ) পত্রমোচন করে পাতায় সঞ্চিত রেচন পদার্থ ত্যাগ করে। 

ফলমোচন – লেবু, তেতুল, আপেল ইত্যাদি ফলের ত্বকে বিভিন্ন জৈব এসিড ( যেমন – সাইট্রিক অ্যাসিড, টারটারিক অ্যাসিড, ফলিক অ্যাসিড ) পদার্থ হিসেবে সঞ্চিত থাকে। ওইসব উদ্ভিদ ফল মোচনের মাধ্যমে রেচন পদার্থ ত্যাগ করে। 

রক্ত তঞ্চন পদ্ধতি –

রক্ত তঞ্চন পদ্ধতি একটি জৈব রাসায়নিক পদ্ধতি। ইহা নিম্নরূপে ঘটে –

i ) ক্ষতস্থানে নির্গত রক্তের অনুচক্রিকা গুলি প্রথমে ভেঙে গিয়ে থ্রম্বোকাইনেজ নামক এনজাইম নিঃসৃত  করে। 

ii ) থ্রম্বোপ্লাস্টিন বা থ্রম্বোকাইনেজ ক্যালসিয়াম আয়নের সাহায্যে রক্তরসের প্রথ্রোম্বিন নামক প্রোটিনকে সক্রিয় থ্রম্বিন এনজাইমে পরিণত করে। এই প্রক্রিয়ার জন্য ভিটামিন K দরকার হয়। 

iii ) এই থ্রমবিন ক্যালসিয়াম আয়নের সাহায্যে রক্তরসে উপস্থিত ফাইব্রিনোজেন নামক প্রোটিনকে সরু সরু ফাইব্রিন তন্তুতে পরিণত করে। 

iv )ক্ষতস্থানে এই ফাইব্রিন তন্তুগুলি জালক এর আকারে বিন্যস্ত হয়। এই জালকে লোহিত কণিকা ও শ্বেত কণিকা গুলি আবদ্ধ হলে তন্তুজালিটি নিশ্ছিদ্র হয় অর্থাৎ রক্ততঞ্চন সম্পূর্ণ হয়।  রক্ত তঞ্চন এর সময়কাল ৩ – ৫ মিনিট। 

Class 9 Model Activity Task Life Science All Part Answer 2021 | Class 9 Life Science | Model Activity Task Life Science Class 9 Part 1- Part 2 Part 4 Part 5 | মডেল আক্টিভিটি টাস্ক Class 9 Life Science Answer 2021 | মডেল আক্টিভিটি টাস্ক Class 9 জীবন বিজ্ঞান উত্তর |

Class 9 Model Activity Task Life Science Part -1

নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর লেখো :

১ ) মাইটোকনড্রিয়ার একটি পরিচ্ছন্ন চিত্র অঙ্কন করো এবং নিম্নলিখিত অংশগুলি চিহ্নিত করো। 

উত্তর – তোমরা নিজেরা বই থেকে দেখে করে নাও। 

২ ) নিম্নলিখিত শনাক্তকারী বৈশিষ্ট্যর ভিত্তিতে মোনেরা ও প্লান্টি রাজ্যের পার্থক্য লেখ – ক ) কোশ  ও কোষীয়  সংগঠনের প্রকৃতি খ ) বাস্তু তন্ত্রের ভূমিকা। হাঙর যে শ্রেণীর অন্তর্গত সেই শ্রেণির তিনটি বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করো। 

উত্তর –  ক ) কোশ  ও কোষীয়  সংগঠনের প্রকৃতি –

বৈশিষ্ট্যমোনেরা প্লান্টি
i ) কোশএরা এককোশী এরা বহুকোশী
ii ) ক্লোরোপ্লাস্টঅনুপস্থিত উপস্থিত
iii ) মাইটোকনড্রিয়াঅনুপস্থিতঅনুপস্থিত
iv ) নিউক্লিয়াসঅসংগঠিতউন্নত 

খ ) বাস্তু তন্ত্রের ভূমিকা – 

বৈশিষ্ট্য –  মোনেরা – বাস্তুতন্ত্রে বিযোজকের ভূমিকা পালন করে। 

বৈশিষ্ট্য – প্লান্টি –   স্বভোজী পুষ্টি সম্পূর্ণ কারি এবং উৎপাদক এর ভূমিকা পালন করে। 

হাঙর মাছের তিনটি বৈশিষ্ট্য

i ) হাঙর তরুণাস্থি বিশিষ্ট মাছ। 

ii ) দেহ আণুবীক্ষণিক প্লাকয়েড আশ দ্বারা আবৃত। 

iii ) অন্তঃকঙ্কাল তরুণাস্থি বিশিষ্ট। 

৩ ) সিউডোসিলোমযুক্ত একটি প্রাণীর নাম লেখ এবং ঐ  প্রাণীটি যে পর্বের অন্তর্গত তার দুটি বৈশিষ্ট্য লেখ। আরশোলার আর্থোপোডা পর্বের অন্তর্ভুক্তির সপক্ষে দুটি যুক্তি দাও। 

উত্তর – সিউডোসিলোমযুক্ত একটি প্রাণীর নাম হলো – গোলকৃমি। 

এই প্রাণীগুলি যে পর্বের অন্তর্গত তা হলো – নিমাটোডা। 

নিমাটোডার বৈশিষ্ট্য – 

i ) দেহ অখন্ডিত নলাকার। 

ii ) দেহে সিউডোসিলোম অবস্থিত। 

iii ) পৌষ্টিক নালী সরল ও সম্পূর্ণ। 

iv ) রক্ত সংবহনতন্ত্র অনুপস্থিত। 

আরশোলার আর্থোপোডা পর্বের অন্তর্ভুক্তির সপক্ষে দুটি যুক্তি – 

i ) দেহ কাইটিন নির্মিত। 

ii ) দেহ বহিঃকঙ্কাল দ্বারা আবৃত। 

৪ ) মানবদেহে ভিটামিন A  এবং ভিটামিন D এর ভূমিকা উল্লেখ করো।  ভাজক কলার বৈশিষ্ট্য লেখ। 

উত্তর –  ভিটামিন A এর ভূমিকা – 

i ) রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধ করে। 

ii ) রেটিনার রড কোষ গঠনে সাহায্য করে। 

iii ) ত্বকের স্বাভাবিকতা বজায় রাখে। 

ভিটামিন D এর ভূমিকা – 

i ) অন্ত্রে ক্যালসিয়াম শোষণে সাহায্য করে। 

ii ) অস্থি ও দন্ত গঠনে সাহায্য করে। 

iii ) অস্থি ও রক্তে ক্যালসিয়ামের সমতা বজায় রাখে। 

ভাজক কলার বৈশিষ্ট্য – 

i ) ভাজক কলার কোষপ্রাচীর খুব পাতলা। 

ii ) ভাজক কলার কোষগুলি গোলাকার ও ডিম্বাকার। 

iii ) ভাজক কলার কোষগুলি আকারে ছোট।


আরও দেখো –

Class 9 Model Activity Task Physical Science


Class 9 Model Activity Task Life Science Part -2

নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর লেখো :

১ ) নিউক্লিয়াসের একটি পরিচ্ছন্ন চিত্র অঙ্কন করে নিম্নলিখিত অংশগুলি চিহ্নিত করো। 

উত্তর – তোমরা নিজেরা বই থেকে দেখে করে নাও। 

২ ) জীবদেহে প্রোটিনের গুরুত্ব ব্যাখ্যা করো। যোগ কলার কাজ লেখ। 

উত্তর – জীবদেহে প্রোটিনের গুরুত্ব – 

i ) দেহস্থ উৎসেচক, হরমোন ইত্যাদি সৃষ্টি করে। 

ii ) দেহের বৃদ্ধি গঠন ও ক্ষয়পূরণ করা হলো প্রোটিনের প্রধান কাজ। 

iii ) অপরিহার্য অ্যামাইনো এসিডের চাহিদা পূরণ করে। 

যোগ কলার কাজ – 

i ) শোষিত খাদ্যসহ বিভিন্ন দ্রবীভূত পদার্থ দেহের বিভিন্ন অংশে পরিবহন করে। 

ii ) যোগ কলা মানবদেহের অন্যান্য অঙ্গ অথবা কলাকে সমর্থন করে। 

iii ) যোগ কলা অঙ্গকে যুক্ত করে অথবা বিচ্ছিন্ন করে। 

৩ ) ব্যক্তবীজী উদ্ভিদের দুটি শনাক্তকারী বৈশিষ্ট্য উল্লেখ করো। নিম্নলিখিত বৈশিষ্ট্যগুলি যে যে প্রাণী দেখা যায় তাদের পর্বের নাম লেখ – নিডোব্লাস্ট কোষ, কম্বপ্লেট, টিউবফিট। 

উত্তর – ব্যক্তবীজী উদ্ভিদের দুটি শনাক্তকারী বৈশিষ্ট্য –

i ) গর্ভাশয় না থাকায় কোনো ফল সৃষ্টি হয় না। 

ii ) এরা বহুবর্ষজীবী। 

iii ) এদের জীবনচক্র অসম আকৃতির।

নিডোব্লাস্ট – পর্ব ( নিডারিয়া ) প্রাণী ( হাইড্রা ) 

কম্বপ্লেট – পর্ব ( টিনফেরা ) প্রাণী ( বেরো )

টিউবফিট – পর্ব ( একইনোডামার্মা ) প্রাণী ( তারামাছ )

৪ ) মানবদেহে প্লীহার অবস্থান ও দুটি ভূমিকা উল্লেখ করো।  প্রাণী কোষের বিভাজনের সেন্ট্রোজোম এর গুরুত্ব নির্ধারণ করো। 

উত্তর – মানবদেহে প্লীহার অবস্থান – প্লীহার অবস্থান নবম, দশম ও একাদশ পাঁজরের ঝুলন্ত অংশের পিছনে মধ্যচ্ছদার ঠিক নিচে। এর উত্তল বহিরাংশ মধ্যচ্ছদাকে স্পর্শ করে থাকে।  এর ভিতরের অবতল  তলগুলির সামনের অংশটি পাকস্থলীকেকে স্পর্শ করে আর পিছনের অংশ বৃক্ককে স্পর্শ করে। 

 প্লীহার দুটি ভূমিকা – 

i ) প্লীহা পুরনো লাল রক্তকোষগুলি অপসারণ করে। 

ii ) প্লীহা RBC  গঠনে সাহায্য করে। 

প্রাণী কোষের বিভাজনের সেন্ট্রোজোম এর গুরুত্ব – 

i ) শুক্রানুর পুচ্ছ গঠনে সাহায্য করে। 

ii ) সেন্ট্রোজোম প্রাণীকোষ বিভাজনকালে বেমতন্তু গঠনে সাহায্য করে। 


আরও দেখো –

Class 9 Model Activity Task English


তোমরা সকলে বাড়িতে মন দিয়ে পড়াশুনা করো।  আর রাজ্য সরকারের নিয়মকানুন মেনে চলো।  

আমি এই পোস্টটিতে তোমার সাথে শেয়ার করেছি –  [ New ] Class 9 Model Activity Task Life Science Part 6 Answers 2021 | Class 9 Life Science | Model Activity Task Life Science Class 9 Part 6 Part 5 Part 4 | মডেল আক্টিভিটি টাস্ক Class 9 Life Science Answer 2021 | মডেল আক্টিভিটি টাস্ক Class 9 জীবন বিজ্ঞান উত্তর |

আশা করি এই পোস্টটি তোমার অনেক উপকারে এসেছে। 

এই পোস্টটি তোমার উপকারে আসলে বন্ধুবান্ধবের সাথে শেয়ার করার অনুরোধ রইল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here