[ 4th series ] Model Activity Task Class 4 Part 7 October 2021

30503
[ 4th series ] Model Activity Task Class 4 Part 7 October 2021
সরকারি সুবিধা,সরকারি প্রকল্প, শিক্ষামূলক পোস্ট,সমস্ত ধরনের অফার,ইনকাম সম্পর্কিত পোস্ট (Online Shikkha Site টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হন )Click Here

[ 4th series ] Model Activity Task Class 4 Part 7 October 2021 | Class 4 Model Activity Task Part 7 Answer 2021 | 4th Part Class IV Model Activity Task All Subject Answer 2021 |

প্রিয় ছাত্র – ছাত্রীরা তোমরা Class IV এর অক্টোবর মাসের নতুন টাস্কের উত্তর এখান থেকে দেখে নাও ।

Class 4 Model Activity Task Bengali Part 7 October 2021

১ ) নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও । 

১.১ ) ‘ এই ছবিটা দেখে উবা আমার দিকে তাকালো । ‘ – উবার পরিচয় দাও । কোন ছবিটা দেখে সে কথকের দিকে তাকিয়েছে ? 

উঃ – অমরেন্দ্র চক্রবর্তীর লেখা ‘ আমাজনের জঙ্গলে ‘ গল্পে কথক আমাজনের জঙ্গলে যাকে বন্ধু হিসেবে পেয়েছিলেন সে হলো উবা । 

ভ্যানরিক্সায় অনেকটা টিনের বড় বাক্সের মতো দেখতে চারদিক বন্ধ গাড়িতে ছোট্ট ছোট্ট ছেলে মেয়েরা গাদাগাদি করে বসে স্কুলে যাচ্ছে । সেই ছবিটা দেখে উবা কথকের দিকে তাকিয়েছে । 

১.২ ) ‘ কোন ভয় নেই মা, আমি ওষুধ বলে দিচ্ছি । ‘ – বক্তা কে ? তিনি কোন ওষুধের কথা বলেছেন ? 

উঃ – প্রশ্নে উদ্ধৃত কথাটির বক্তা হলেন ‘ আলো ‘ নাটকের পাঠশালার গুরুমশাই । 

গুরুমশাই শম্ভুকে শুশনি পাহাড়ের মাথায় হাড়ভাঙ্গা পাতার গাছ আর পাথরের গুহা থেকে মধু সংগ্রহ করে আনতে বললেন।  ওই পাতা বেটে মধুর সঙ্গে মিশিয়ে শম্ভুর দাদুর পায়ে লাগিয়ে দিলেই ব্যথা সেরে যাবে । 

১.৩ ) ‘ মাঠের বৃষ্টি বড় বিশাল । ‘ – সেই বৃষ্টির বিবরণ কথক কিভাবে দিয়েছে ? 

উঃ – লেখক মণীন্দ্র গুপ্ত তার ‘ অ্যাডভেঞ্চার বর্ষায় ‘ গল্পে বলেছেন মাঠের বৃষ্টি বড় বিশাল ।  অনাবৃত পৃথিবীকে নিরাশ্রয় পেয়ে তার বল দুর্ধর্ষ। বাতাসের বেগ জলের রেখাকে থুড়ে থুড়ে ধোঁয়া করে দেয়। বৃষ্টির ফোঁটার পেরেকগাঁথার মতো তার পিঠে এসে পড়ে।  প্রবল ঝড়ের ধাক্কায় কথক যেন আপনার  থেকেই তিনগুণ বেগে বিনা আয়াসে এগিয়ে চলেন । 

১.৪ ) ‘ আমার তরী বোঝাই করে দেবে উপহার । ‘ – কে, কি উপহার দেবে ? 

উঃ – বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা ‘ আমি সাগর পাড়ি দেবো ‘ কবিতায় কথক বলেছেন যে সমুদ্র তার বন্ধু হয়ে তাকে দুর্মূল্য রত্ন মানিক উপহার দেবে । 

১.৫ ) ‘ দূরের পাল্লা ‘ কবিতায় কতজন মাঝির কথা রয়েছে ? তারা নৌকোয় বসে কি করছেন ? 

উঃ – সত্যেন্দ্রনাথ দত্তের লেখা ‘ দূরের পাল্লা ‘ কবিতায় তিনজন মাঝির কথা রয়েছে । 

তারা নৌকায় বসে দাঁর টেনে নৌকাকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় চারপাশের দৃশ্য দেখছে এবং অচেনা কোন গান গাইছে । 

২ ) নিচের ব্যাকরণগত প্রশ্নগুলির উত্তর দাও । 

২.১ ) সন্ধি বিচ্ছেদ করো – অপেক্ষা, ব্যবহার, অধ্যুষিত । 

উঃ – অপেক্ষা = অপ + ঈক্ষা । ব্যবহার = বি + অবহার । অধ্যুষিত = অধি + ঊষিত । 

২.২ ) সন্ধি করো । অতি + উক্তি, প্রতি + অক্ষ । 

উঃ – অতি + উক্তি = অত্যুক্তি ।  প্রতি + অক্ষ = প্রত্যক্ষ । 

Class IV English, Maths, Health and Physical Education Part 7উত্তর দেখো ( ক্লিক করো )

Class 4 Bengali Part 7 October, 4th Part 2021 Class 4 Bengali Task Answer, Class IV Bengali October 2021

Class 4 Model Activity Task Amader Poribesh Part 7 October 2021

১ ) ঠিক উত্তর নির্বাচন করো । 

১.১ ) সপ্তর্ষিমণ্ডল দেখা যায় আকাশের – 

উঃ – ক ) উত্তর-পূর্ব দিকে । 

১.২ ) মানুষ প্রথম যে ধাতুর ব্যবহার শিখেছিল সেটি হল – 

উঃ – গ ) তামা । 

১.৩ ) নৌকা চালানোর সময় গাওয়া হয় – 

উঃ – ঘ ) সারি গান । 

২ ) ঠিক বাক্যের পাশে ( রাইট ) আর ভুল বাক্যের পাশে ( ক্রস ) চিহ্ন দাও । 

২.১ ) চাঁদের বুকে প্রথম পা দেন রাকেশ শর্মা । 

উঃ – ভুল । 

২.২ ) মানুষ প্রথমে কাঠ দিয়ে চাকা বানাত । 

উঃ – ঠিক । 

২.৩ ) আদিম মানুষেরা কাঠ কয়লা দিয়ে ছবি আঁকতো । 

উঃ – ঠিক । 

৩ ) একটি বা দুটি বাক্যে উত্তর দাও । 

৩.১ ) মহাকাশ নিয়ে গবেষণায় গ্যালিলিওর অবদান উল্লেখ করো । 

উঃ – বিজ্ঞানী গ্যালিলিও নিজেই তৈরি করে ফেলেন একটা দূরবীন ।  তার সাহায্যে পৃথিবী থেকে অনেক দূরের বৃহস্পতি গ্রহকে তিনি দেখতে পান । আরও দেখতে পান বৃহস্পতি গ্রহের বারোটার মধ্যে চারটি উপগ্রহকে । গ্যালিলিও – ই প্রথম দেখান যে চাঁদ পৃথিবীর মতোই আসমান, গভীর খাদে ভড়া একটা পাথুরে কঠিন বস্তু । 

৩.২ ) দৈনন্দিন জীবনে নানা রকম টুল এর সাহায্য নেওয়া হয় কেন ? 

উঃ – দৈনন্দিন জীবনে নানা রকম কাজে আমরা নানা রকম টুল ব্যবহার করি । তাদের শ্রম ও সময় দুই কম লাগে । টুল ব্যবহার করে কম সময়ে অনেক কঠিন কাজ সহজে করে ফেলা যায় । যেমন – আম গাছ থেকে লগা দিয়ে সহজেই আমরা আম পাড়তে পারি, এছাড়া নারকেল গাছ থেকে নারকেল পারতে পারি । 

৩.৩ ) ‘ কে কোথায় থাকেন তার ওপর জীবিকার ধরন অনেকটাই নির্ভর করে ‘ –  উদাহরণের সাহায্যে বক্তব্যটির যথার্থতা ব্যাখ্যা করো । 

উঃ – কে কোথায় থাকেন তার ওপর জীবিকার ধরণ অনেকটাই নির্ভর করে । যেমন – দার্জিলিংয়ের মানুষেরা চা পাতা তৈরির কাজ করেন । অনেকে বিভিন্ন জায়গায় পর্যটকদের ঘোরান। আবার বীরভূম, বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার বহু মানুষ পাথরের খাদানে কাজ করেন । নদী বা সমুদ্রের আশেপাশে থাকা মানুষেরা মাছ ধরা, নৌকা তৈরি ইত্যাদির কাজ করেন । 

৪ ) দুটি বা তিনটি বাক্যে উত্তর দাও । 

৪.১ ) ‘ আগুনের আবিষ্কার আদিম যুগের মানুষের জীবনে নানা রকম পরিবর্তনের সূচনা করে ‘ – বক্তব্যটির যথার্থতা ব্যাখ্যা করো । 

উঃ – আগুন আবিষ্কারের ফলে আদিম মানুষেরা ঠান্ডার হাত থেকে নিজেদেরকে বাঁচাতে পেরেছিল । তারা কাঁচা মাংস খাওয়ার পরিবর্তে খাবার ঝলসে খেতে শুরু করল । আগুনে ঝলসানো খাবারের জীবাণু মরে যেত । আর সেগুলো হজম করা সহজ হতো । এর ফলে মানুষের শরীরে নানা রকম বদল ঘটতে শুরু হলো । এছাড়াও মানুষ বন্য পশুর হাত থেকে বাঁচতে আগুনের ভয় দেখাতো । 

Class 4 Amader Poribesh Part 7 October, 4th Part 2021 Class 4 Amader Poribesh Task Answer, Class IV Amader Poribesh October 2021

[ 3rd Part ] Model Activity Task Class 4 Bengali Part 6 September 2021

১ ) নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও । 

১.১ ) ‘ বোতোর দেখা পাওয়া নাকি সবসময়ই ভালো ‘ – বোতোর পরিচয় দাও । 

উঃ – বোতো সম্পর্কে আমাজন জঙ্গলে প্রচলিত বিশ্বাস এইযে তিনি আমাজনের দেবতা এবং অঞ্চলটিকে বিপদ থেকে রক্ষা করেন । জলের তলায় রয়েছে তার মস্ত শহর, সেখানে রঙিন পাথরে তৈরি তার বিরাট প্রাসাদ অবস্থিত । উবার নির্দেশে জলের দিকে তাকিয়ে কথক বুঝতে পারেন বোতো অনেকটা ডলফিন জাতীয় প্রাণী । তার নাক বা ঠোঁট খুব সরু, মাথা মস্ত বড় এবং সে লম্বায় এক দেড় হাত । 

১.২ ) ‘ আমি সাগর পাড়ি দেবো ‘ কবিতাংশটি কোন কবিতা থেকে নেওয়া হয়েছে ? 

উঃ – বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের  ‘ আমি সাগর পাড়ি দেবো ‘ কবিতাংশটি তাঁরই লেখা ‘ পুতুলের বিয়ে ‘ নাটকের ‘ সাত ভাই চম্পা ‘ কবিতা থেকে নেওয়া হয়েছে । 

১.৩ ) স্যার ক্লেমেন্টস মার্কহ্যাম কে ছিলেন ? 

উঃ – স্যার ক্লেমেন্টস মার্কহ্যাম ছিলেন রয়েল জিওগ্রাফিক্যাল সোসাইটির প্রেসিডেন্ট । তার সঙ্গে পরামর্শ করে স্কট দক্ষিণ মেরু অভিযান এর অধিনায়কত্ব গ্রহণ করেন । 

১.৪ ) ‘ সে আমি পারবো না ‘ – বক্তা কি পারবে না ? 

উঃ – লীলা মজুমদারের লেখা ‘ আলো ‘ নাটকে উক্ত কথাটির বক্তা হলো শম্ভু । সন্ধ্যেবেলা দাদু ফিরছে না দেখে তার পিসি শম্ভুকে বারবার খুঁজতে যেতে বললেও সে যেতে চায় না । শম্ভু বন এবং অন্ধকারকে খুব ভয় পায় । তাই সে তার দাদুকে খুঁজতে যেতে পারবে না বলে জানিয়ে দেয় । 

১.৫ ) ‘ কিন্তু কিছুই হলো না ‘ – কোন প্রসঙ্গে কথক একথা বলেছে ? 

উঃ – মণীন্দ্র গুপ্তের লেখা ‘ অ্যাডভেঞ্চার বর্ষায় ‘ গল্পের কথক সেজো পিসিমার বাড়িতে বেড়াতে এসে বৃষ্টিতে আটকে পড়েছিলেন । এদিকে বাড়ির জন্য তার মন ছটফট করছিল । তার এক পিসতুতো ভাই তাকে বলেছিল, একশোটা ‘ পুর ‘ কাগজে লিখে পোড়ালে নাকি বৃষ্টি থেমে যায় । সেই কথামতো কথক কাশিপুর, চাঁদপুর, ফতেপুর, শিবপুর ইত্যাদি পৃথিবীর যত পুর আছে লিখে পোড়ালেন । তবুও বৃষ্টি থামল না । এই প্রসঙ্গেই কথক বলেছেন যে  ‘ কিন্তু কিছুই হলো না ‘ । 

১.৬ ) ‘ ধলেশ্বরী খ্যাপা নদী ‘ – এ কথা বলা হয়েছে কেন ? 

উঃ – রানী চন্দের লেখা ‘ আমার মার বাপের বাড়ি ‘ শীর্ষক গল্পে ধলেশ্বরী নদীকে ক্ষ্যাপা নদী বলা হয়েছে । এর কারণ ধলেশ্বরী নদী তালে বেতালে চলে, চলার তাল ঠিক রাখতে জানে না । নদীটির বেগ ও স্রোত প্রবল । এলোপাতাড়ি ঢেউ এদিক ওদিক থেকে আছড়ে পড়ে নৌকার গায়ে । 

১.৭ ) ‘ মন উম্মন গো ‘ – কার মনের এমন পরিস্থিতি ? 

উঃ – সত্যেন্দ্রনাথ দত্তের লেখা ‘ দূরের পাল্লা ‘ কবিতায় ঘোমটা পরা এক গ্রাম্য বধুর মনের আনমনা পরিস্থিতির কথা বলা হয়েছে । বধূটি নদীতে স্নান করতে ও কলসি ভরে জল নিয়ে যেতে এসেছে । তার মন এতটাই অন্যমনস্ক হয়ে রয়েছে যে তার ঘোমটা সরে যাচ্ছে, সেদিকে তার খেয়ালই নেই । 

২ ) নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর নিজের ভাষায় লেখ । 

২.১ ) ‘ উবা আমার চোখের দৃষ্টি দেখে বুঝতে চায়… ‘ – উবা কি বুঝতে চায় ? 

উঃ – অমরেন্দ্র চক্রবর্তীর লেখা ‘ আমাজনের জঙ্গলে ‘ গল্পে উবা লেখকের চোখের দৃষ্টি দেখে বুঝতে চায় লেখক কে, তিনি কোথা থেকে এসেছেন, তিনি কোন পৃথিবীর মানুষ, সেই পৃথিবীটাই বা কিরকম এসবই ।

২.২ ) ‘ বর্ষা দিয়ে বিঁধবে তারা, রাজ্যে আমার এলে ‘ – কারা এমনটি করবে ? 

উঃ – কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা ‘ আমি সাগর পাড়ি দেবো ‘ কবিতায় হাঙ্গর, তিমির মত জলদস্যুদের উদ্দেশ্যে কথক বলেছেন যে তিনি তাদের জন্য পাহারা রেখে যাবেন । জলদস্যুরা যদি তার রাজ্য আক্রমণ করে তাহলে সিন্ধুগাজী, মোল্লা মাঝি, নৌসেনা ও জেলেরা বর্শা দিয়ে তাদের বিঁধে ফেলবে । 

২.৩ ) ‘ যাত্রা শুরু হলো সেই নির্দিষ্ট দেশের দিকে ‘ – ‘ দক্ষিণমেরু অভিযান ‘ রচনা অনুসরণে সেই অভিজ্ঞতার বিবরণ দাও । 

উঃ – ১৯০২ সালের নভেম্বর মাসে ক্যপ্টেন স্কট, সাকলটন ও উইলসন উনিশটা কুকুর সাথে নিয়ে স্লেজ গাড়িতে করে দক্ষিণ মেরুর দিকে এগিয়ে যেতে থাকেন । তারা যেখান দিয়ে যান সেখানে এক এক জায়গায় তাবু ফেলে খাবার রেখে যান এবং প্রত্যেক তাবুর উপর একটা করে পতাকা গুঁজে রাখেন যাতে ফেরার পথে খাবার পাওয়া যায় এবং পথেরও নিশানা হয় । কিন্তু তারা যতোই এগোতে থাকলেন বরফের ঝড় ততই তীব্র থেকে তীব্রতর হয়ে উঠতে লাগলো । ফলে তারা বাধ্য হন ফিরে আসার জন্য । ফিরে আসার সময় পথে সকলেই ক্ষুধায় অবসন্ন হয়ে পড়েছিলেন । কুকুরের খাবার জোগানোর জন্য তারা একটা কুকুরের মাংস অন্য কুকুরগুলোকে খাওয়াতে লাগলেন । এইরকম করে কোনরকমে জীবন বাঁচিয়ে তারা আবার কিং এডওয়ার্ড দ্বীপে ফিরে আসেন । 

২.৪ ) ‘ আলো ‘ নাটকে বাদুড়দের গানের বক্তব্যটি কী ? 

উঃ –  ‘ আলো ‘ নাটকে বাদুড়দের গানের বক্তব্য হলো – তারা কালো ডানা মেলে এবং উজ্জ্বল সাদা দাঁতের সারি বের করে বসে আছে।  তাদের আলো সহ্য হয় না, তারা গুহাতে থাকে।  তাদের গুহাতে সোঁদা গন্ধ এবং সেই গুহা বন্ধ।  এই সমস্ত বিষয়ই সেখানে ভয়ের পরিবেশ সৃষ্টি করেছে এবং বাদুড়েরা চায় সেই ভয়েরই যেন জয় হয়।  অর্থাৎ বাদুড়েরা এসব কথা বলে শম্ভুর মনে ভয় জাগাতে চেষ্টা করেছিল।  

২.৫ ) ‘ অ্যাডভেঞ্চার বর্ষায় ‘ রচনাতে কথক তার ছোট পিসিমার কথা কিভাবে স্মরণ করেছেন ? 

উঃ – মণীন্দ্র গুপ্তের লেখা ‘ অ্যাডভেঞ্চার বর্ষায় ‘ গল্পে কথক এর ছোট পিসিমা ছিলেন বিধবা।  বিধবা হওয়ার পর থেকেই তিনি একা একা ভিটে আগলান, ছেলেদের আগলান।  কিন্তু তার প্রাণ শক্তি প্রচুর। তিনি দিনের বেলা খলবল করে কাজ করেন এবং রাতে লন্ঠন জ্বালিয়ে পাহারা দেন।চোর, ডাকাত, প্রতিবেশী এবং সন্তানেরা কেউ তার সঙ্গে এঁটে উঠতে পারেনা।  এভাবেই কথক তার ছোট পিসিমার কথা স্মরণ করেছেন।  

২.৬ ) ‘ নৌকো পাড়ে লাগে ‘ – তখন ভাই বোনেরা কি করে ? 

উঃ – রানী চন্দের লেখা ‘ আমার মার বাপের বাড়ি ‘ গল্পে দেখা যায় নৌকা যখন পাড়ে  লাগে তখন লেখিকা ও তার ভাই বোনেরা নৌকা থেকে লাফিয়ে পড়েন । পাড়ে  নলখাগড়ার বনে ও বালির চরে ছুটোছুটি করেন । এছাড়াও গতরাত্রে রান্না করে আনা লুচি, আলুর দম, হালুয়া জলের ধারে বসে খেয়ে হাত মুখ ধুয়ে আবার নৌকায় উঠে পড়েন । 

২.৭ ) ‘ দূরের পাল্লা ‘ কবিতায় নৌকো থেকে কোন দৃশ্য চোখে পড়ে ? 

উঃ – সত্যেন্দ্রনাথ দত্তের লেখা ‘ দূরের পাল্লা ‘ কবিতায় দূরে যাত্রা করতে তিনজন মাল্লা নৌকা চালানো শুরু করে । সারারাত দিন ধরে তারা নৌকা বায় । দিনের বেলা তাদের চোখে পড়ে নদীর পাড়ে জমে থাকা জঞ্জাল, গজিয়ে ওঠা ঝোপঝাড় । নদীর জলে শৈবালে পরিপূর্ণ, চড়ে জেগে ওঠা কঞ্চির বন, বনহাসের তার নিজের ডিম শ্যাওলায় ঢেকে ফেলার দৃশ্যরও দেখা মেলে । পানকৌড়ি জলে ডুব দেয়, নদীর ঘাটে স্নান করে ঘোমটা পরা বউ । স্নান শেষে কলসিতে জল ভরে তারা ঘরের পথে পা বাড়ায় । নৌকা থেকে এইসব দৃশ্যই মাঝিদের চোখে পড়ে । 

৩ ) নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও । 

৩.১ ) মাসুদুর রহমান ছিলেন দক্ষ সাঁতারু । ( কর্তা খণ্ডকে বাড়াও ) 

উঃ – বাংলার সন্তান মাসুদুর রহমান ছিলেন দক্ষ সাঁতারু । 

৩.২ ) সৌগত বই দিলো । ( ক্রিয়া খণ্ডকে বাড়াও ) 

উঃ – সৌগত রাহুলকে তাক থেকে পেড়ে নিজের বই দিলো । 

৩.৩ ) নির্দেশ অনুযায়ী কর্ম এবং ক্রিয়া বসিয়ে শূন্যস্থান পূরণ করে বাক্য রচনা করো । 

উঃ – সব ভারতীয়ই ভারতবর্ষকে ভালোবাসে । 

Model Activity Task Class 4 Bengali Part 6 | 3rd Part Class 4 Model Activity Task Bengali | ক্লাস ৪ মডেল আক্টিভিটি টাস্ক বাংলা পার্ট ৬ |

[ 3rd Part ] Model Activity Task Class 4 Amader Poribesh Part 6 September 2021

১ ) শূন্যস্থান পূরণ করো । 

১.১ ) পৃথিবীর _________ হল চাঁদ । 

উঃ – উপগ্রহ । 

১.২ ) তরল দাহ্য বস্তুর একটি উদাহরণ হল _______ । 

উঃ – পেট্রোল । 

১.৩ ) ভারতের ________ গুহাচিত্র দেখতে পাওয়া যায় । 

উঃ – অজন্তা । 

২ ) বাম স্তম্ভের সঙ্গে ডান স্তম্ভের মিল করে লেখো । 

উত্তর –

বাম স্তম্ভডান স্তম্ভ
মৃৎ শিল্পগ ) কৃষ্ণনগর । 
ছৌ নাচক ) পুরুলিয়া । 
সিল্কের শাড়িঘ ) বিষ্ণুপুর । 

৩ ) একটি বা দুটি বাক্যে উত্তর দাও । 

৩.১ ) আগেকার দিনের মানুষ নানা পশুকে পোষ মানিয়েছিল কেন ? 

উঃ – মানুষ বুঝতে পেরেছিল পশুকে পোষ মানালে সারা বছর ধরে মাংস, দুধ, চামড়া প্রভৃতি পাওয়া যাবে । এর সঙ্গে আত্মরক্ষা, যাতাযাত প্রভৃতি কাজে পশুদের ব্যবহার করা যাবে । তাতে সুবিধা অনেক বেশি । তাই মানুষ পশুকে পোষ মানিয়েছিল । 

৩.২ ) অমাবস্যায় চাঁদকে দেখতে পাওয়া যায় না কেন ? 

উঃ – অমাবস্যার দিনে চাঁদের সেই দিকটা আমাদের সামনে থাকে, যেদিকে সূর্যের আলো পড়ে না । তাই অমাবস্যায় চাঁদকে দেখতে পাওয়া যায় না । 

৪ ) দুটি বা তিনটি বাক্যে উত্তর দাও । 

৪.১ ) ‘ বাসস্থানের কাছাকাছি জল থাকলে সুবিধে ‘ – বক্তব্যটির যথার্থতা ব্যাখ্যা করো । 

উঃ – বাসস্থান এর কাছাকাছি জল থাকলে অনেক সুবিধা হয় যেমন – 

i ) পানীয় জল ও প্রতিদিনের নানা রকম কাজে ব্যবহার করার জন্য জল সহজেই পাওয়া যায় । 

ii ) চাষের কাজে জল দিতে সুবিধা হয় । 

iii ) মাছ ধরা যায় । 

iv ) এছাড়াও জলপথ ব্যবহার করে যাতায়াত করা যায় । জিনিসপত্র এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় নিয়ে যাওয়া যায় । ফলে ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নতি হয় । 

Model Activity Task Class 4 Amader Poribesh Part 6 | 3rd Part Class 4 Model Activity Task Amader Poribesh | ক্লাস ৪ মডেল আক্টিভিটি টাস্ক আমাদের পরিবেশ পার্ট ৬ |

[ August Task ] Class 4 Model Activity Task Bengali

নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও : 

১ ) ‘ সেই স্তব্ধতার মধ্যে উবার ফিশফিশ গলা শুনতে পেলাম ‘ –  উবা কোন কথা ফিশফিশিয়ে বলে উঠেছে। 

উঃ – উবা ফিশফিশিয়ে বলে উঠেছে  – বোতো ! বোতো ! অর্থাৎ সে বলতে চাইছে বোতোকে দেখা যাচ্ছে।  

২ ) ‘ জলের নীচে বোতোকে দেখতে দেখতে আমি মনে মনে বললাম … ‘ –  কথক মনে মনে কি বলেছিল ? 

উঃ – জলের নিচে বোতোকে দেখতে দেখতে কথক মনে মনে বলেছিলেন, বোতো যদি সত্যিই দেবতা হয় তাহলে সে যেন কথককে তার মা-বাবা ও স্কুলের বন্ধুদের কাছে ফিরে যাওয়ার উপায় করে দেয়।  

৩ ) ‘ আমি সাগর পাড়ি দেবো ‘ –  বক্তার সাগর পাড়ি দেওয়ার উদ্দেশ্য কি ? 

উঃ – ‘ আমি সাগর পাড়ি দেব ‘ কবিতায় কবি কাজী নজরুল ইসলাম সাগর পাড়ি দেওয়ার বাসনা প্রকাশ করেছেন। দেশ-বিদেশ থেকে জহরত, পান্নাচুনি, মুক্তার মালা ইত্যাদি এনে তিনি তাঁর মায়ের দুঃখ ঘুচাবেন।  তিনি হবেন রাজার কুমার আর মাকে বানাবেন রাজরানী।  

৪ ) ‘ দক্ষিণ মেরু অভিযান ‘ গদ্যাংশে এঁদের নাম কোন কোন প্রসঙ্গে এসেছে ? 

উঃ – সার ক্লেমেন্টস মার্কহাম – রয়েল জিওগ্রাফিক্যাল সোসাইটির প্রেসিডেন্ট। 

আর্নস্ট স্যাকলটন – ডিসকভারি নামক জাহাজের নাবিক।  

উইলসন – ১৯০২ সালের নভেম্বরে শ্লেজযাত্রার সঙ্গী।  

ইভানস – দ্বিতীয় অভিযানের সঙ্গী।  

আমুন্ডসেন – দক্ষিণ মেরুর প্রথম আবিষ্কর্তা।  

৫ ) ‘ আলো ‘ নাটকের পাত্র-পাত্রী কারা ? তাদের মধ্যে কাকে তোমার সবচেয়ে ভালো লেগেছে এবং কেন ? 

উঃ – লীলা মজুমদারের ‘ আলো ‘ নাটকের পাত্র-পাত্রীরা হল – পিসি, শম্ভু, নিতাই, গুরুমশাই এছাড়াও বেড়াল,গায়কগণ প্রভৃতি।  

এদের মধ্যে শম্ভুকে আমার সবথেকে ভালো লেগেছে।  

শম্ভুকে ভালো লাগার কারণ হলো – নাটকের শুরুতে তাকে ভীতু বলে মনে হলেও পড়ে সে সাহসিকতার পরিচয় দেয়। গুরুমশাই এর নির্দেশে শম্ভু ঝড়, জল ও ঘন অন্ধকারের মধ্যে বিড়ালের কান্না, পেচাঁদের গান, গাছেদের গান, বনবিড়ালদের চিৎকার, মনসাঝোপের গান এবং গুহার বাঁদুড়দের চিৎকার জয় করে সুসান পাহাড় থেকে হাড়ভাঙ্গার পাতা এবং মধু নিয়ে আসে।  

৬ ) ‘…আমাদের দলটা চলল সেজোপিসিমার বাড়ির দিকে। ‘ সেজোপিসিমার বাড়ি কোন গ্রামে ? তার বাড়ি যাওয়ার পথে কি ঘটেছিল ? 

উঃ – সেজোপিসিমার বাড়ি চন্দ্রহার গ্রামে। 

বেশ হইচই ওরে কথকেরা সেজোপিসির বাড়ির পথে চলছিল।  অপরাহ্ণে হঠাৎ নীল ঘাস দিয়ে বোনা পাখির বাসার মেঘ উঠলো। বাতাস ও বিদ্যুৎ এসে ঘোট পাকাতে লাগলো। বৃষ্টিও নামল। তাঁদের একমাত্র তাপ্পিমারা ছাতাটাও উল্টে গেল । বৃষ্টি ঝেপে এল তারা গাছ তলায় দাঁড়ায়, কমলে আবার হাঁটে । শেষে বিরক্ত হয়ে বৃষ্টির মধ্যেই তারা চলতে লাগলো । পথে কিছু মাছ ধরে তারা উল্টানো ছাতার মধ্যে ভরে নিল । অবশেষে সন্ধ্যার মুখে তারা সেজোপিসিমার বাড়ি পৌঁছালো। 

Model Activity Task Class 4 All Part 2021 | Class 4 Model Activity Task Part 4 Part 5 Answer 2021 |

[ August Task ] Class 4 Model Activity Task Poribesh

১ ) ঠিক উত্তর নির্বাচন করো : 

১.১ ) চাঁদ পৃথিবীর চারদিকে অনবরত ঘুরছে – 

উঃ – ঘ ) পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে।  

১.২ ) ব্রোঞ্জ তৈরি করা হয় যে দুটি ধাতু মিশিয়ে সেগুলি হল – 

উঃ – খ ) তামা আর টিন।  

১.৩ ) টুসু পরব পালন করা হয় যে মাসে সেটি হল – 

উঃ – ঘ ) পৌষ । 

২ ) একটি বাক্যে উত্তর দাও ঃ 

২.১ ) ধ্রুবতারাকে আকাশের কোন দিকে দেখা যায় ? 

উঃ – ধ্রুবতারাকে আকাশের উত্তর দিকে দেখা যায় । 

২.২ ) এমন একটা বর্জ্য পদার্থের নাম লেখ যা সহজে মাটিতে মিশে যায় না । 

উঃ – প্লাস্টিক এমন একটা বর্জ্য পদার্থ যা সহজে মাটিতে মিশে যায় না । 

২.৩ ) পশ্চিমবঙ্গের কোথায় রেল ইঞ্জিন তৈরীর কারখানা আছে ? 

উঃ – পশ্চিমবঙ্গের চিত্তরঞ্জনে রেল ইঞ্জিন তৈরীর কারখানা আছে । 

৩ ) একটি বা দুটি বাক্যে উত্তর দাও ঃ 

৩.১ ) কৃত্রিম উপগ্রহগুলি আমাদের দৈনন্দিন জীবনে কিভাবে সাহায্য করে ? 

উঃ – কৃত্রিম উপগ্রহগুলি থেকে আমরা আবহাওয়ার পূর্বাভাস পায় । তাছাড়া মোবাইলে কথাবলা, টিভি দেখা ও রেডিও শোনার পিছনেও এদের ভূমিকা রয়েছে । 

৩.২ ) ডোকরার পুতুল কিভাবে বানানো হয় ? 

উঃ – মৌ – মোম আর ধুনোর ছাঁচে গলানো পিতল ঢেলে ডোকরার পুতুল বানানো হয় । 

৪ ) দুটি বা তিনটি বাক্যে উত্তর দাও ঃ 

৪.১ ) বিষাক্ত সাপ কামড়ালে সঙ্গে সঙ্গে কি কি করা উচিত বলে তোমার মনে হয় ? 

উঃ – বিষাক্ত সাপ কামড়ালে – 

i ) ক্ষতস্থান সাবান জল দিয়ে ভালো করে ধুয়ে দিতে হবে । 

ii ) রোগীকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে । 

iii ) রোগীকে সাহস দিতে হবে । 

iv ) রোগী বমি করতে চাইলে তা করতে দিতে হবে । 

v ) বিষ দাঁত লেগে থাকলে তা তুলে ফেলতে হবে ।

New Model Activity Task Class 4 Bengali Part 4 Part 5 2021| New Model Activity Task Class 4 Poribesh Part 4 Part 5 2021 |

New Model Activity Task Class 4 Bengali 2021 Part 4

১ ) একটি বাক্যে উত্তর দাও 

১.১ ) ‘ সন্দেহ নাই মাত্র। ‘ –  কোন বিষয়ে কবির মনে কোন সন্দেহ নেই ?

উত্তর – কবি এই পৃথিবীর বিরাট খাতায় পাঠ্য বিষয় থেকে নতুন নতুন জিনিস শিখছেন তাতে তার সন্দেহ নেই। 

১.২ ) ‘ গর্তের ভিতর কে ও ? ‘ –  বক্তা কে ?

উত্তর – এখানে বক্তা হলো শিয়াল।  

১.৩ )  তোত্তো – চান স্কুলে গিয়ে ইয়াসুয়াকি – চানকে  কোন অবস্থায় দেখতে পেল ?

উত্তর – তোত্তো – চান স্কুলে গিয়ে দেখলো, ইয়াসুয়াকি – চান ফুলগাছগুলোর পাশে দাঁড়িয়ে আছে। 

১.৪ ) “…. সবাই বল্লে – ‘ বেজাই মিঠে ! ‘ – তাদের কাছে কোন কোন খাবার বেজাই মিঠে লেগেছিল ?

উত্তর – ধুলো বালির কোরমা পোলাও, কাদার পিঠে মিছি মিছি খেয়ে সেগুলি তাদের কাছে মিঠে লেগেছিল। 

১.৫ ) ‘ বক সে চালাক অতি চিকিৎসক – চুঞ্চু । ‘ –  চুঞ্চু শব্দের অর্থ কি ?

উত্তর – চুঞ্চু শব্দের অর্থ হলো ওস্তাদ।  

১.৬ ) ‘ মালগাড়ি ‘ কবিতায় কথক কার কাছে,  ‘ মালগাড়ি ‘ হওয়ার বর চাইবে ?

উত্তর – ‘ মালগাড়ি ‘ কবিতায় কথক পরীর কাছে  ‘ মালগাড়ি ‘ হওয়ার বর চাইবে। 

১.৭ ) ‘ সে ঘোর বনে মানুষের নামগন্ধ নেই,  শুধু জানোয়ারের কিলিবিলি ! ‘ – কোন জঙ্গলের কথা বলা হয়েছে ?

উত্তর – এখানে লুসাই পাহাড়ের জঙ্গলের কথা বলা হয়েছে। 

১.৮ ) ‘ ইচ্ছা করে সেলেট ফেলে দিয়ে / অমনি করে বেড়াই নিয়ে ফেরি। ‘ –  কথকের কি কি  ফেরি নিয়ে বেড়াতে ইচ্ছা করে ?

উত্তর – কথকের চুড়ি ও চীনের পুতুল ফেরি নিয়ে বেড়াতে ইচ্ছা করে। 

২ ) নিজের ভাষায় উত্তর দাও 

২.১ ) ‘ নানান ভাবের নতুন জিনিস / শিখছি দিবা রাত্র। ‘ – ‘  সবার আমি ছাত্র ‘ কবিতায় কবি কিভাবে প্রকৃতি থেকে দিনরাত নানান ভাবের নতুন জিনিস শেখেন ?

উত্তর – সুনির্মল বসুর ‘ সবার আমি ছাত্র ‘ কবিতায় কবি প্রকৃতি থেকে দিনরাত নানাভাবে নতুন নতুন জিনিস শেখেন। আকাশের কাছ থেকে তিনি উদার হবার শিক্ষা পান। কর্মী হবার মন্ত্র আসে বায়ুর কাছ  থেকে।  পাহাড়ের কাছ থেকে তিনি মৌন-মহান হওয়ার শিক্ষা পান।  এরপর সূর্য থেকে আপন তেজে জ্বলার  এবং চাঁদ তাকে হাসিমুখে মধুর কথা বলার শিক্ষা দেয়।  অন্তরকে রত্নাকর করে তোলার ইঙ্গিত আসে সাগরের কাছ থেকে।  এছাড়াও নদীর কাছ থেকে আপন বেগে চলার, মাটির কাছ থেকে সহিষ্ণুতার, পাষানের কাছ থেকে কাজে কঠোর হওয়ার এবং ঝর্ণার কাছ থেকে গান গাওয়ার শিক্ষা পান।সর্বোপরি সবুজ বন কবিকে সরসতার ভিক্ষা দেয়। 

২.২ ) ‘ গাছে ওঠা ব্যাপারটা তাহলে এইরকম ! ‘ – বক্তার অভিজ্ঞতার নিরিখে গাছে ওঠা ব্যাপারটা কি রকম ?

উত্তর – ‘ তোত্তো – চানের অ্যাডভেঞ্চার ‘ গল্পে গাছে ওঠার ব্যাপারটা বড় অদ্ভুত। পরিকল্পনা মতো একটি মই এনে গাছে লাগানো হলো। ইয়াসুয়াকি – চান নিজে উঠতে পারল না।  তোত্তো – চান তাকে নিচ  থেকে ঠেলে তোলার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হলো। এরপর একটা সিড়ির মতন মই এনে লাগালো গাছের গোড়ায়।  অনেক কষ্ট করে ইয়াসুয়াকি – চান মই এর মাথায় পৌঁছালো। ভাগ হওয়া ডালে দাঁড়িয়ে তোত্তো চান, মই এর মাথায় পেটের ওপর ভর দিয়ে শুয়ে থাকা ইয়াসুয়াকি  চানকে  টানতে থাকে।  অবশেষে দুজনে গাছের ডালে মুখোমুখি দাঁড়াতে পারলো। তোত্তো – চান ইয়াসুয়াকি  চানকে আমন্ত্রণ জানালো স্বাগত। ইয়াসুয়াকি  চান গাছের গায়ে পিঠ ঠেকিয়ে লাজুক ভাবে হেসে বলল ‘ আসতে পারি ভিতরে। ‘

২.৩ ) ‘ আম বাগিচার তলায় যেন তারা হেসেছে। ‘ – একথা বলা হয়েছে কেন ?

উত্তর – গোলাম মোস্তফার লেখা ‘ বনভোজন ‘ কবিতায় এই ঘটনাটি উল্লেখ আছে।  নুরু, পুশি, আয়েশা, শফি সবাই আম বাগিচার তলায় এসে শখের রান্না করছিল।  সেই জন্য ওই ছোট ছোট ছেলেমেয়েদের উদ্দেশ্য করে একথা বলা হয়েছে। 

২.৪ ) টীকা লেখ  – পটগুলটিশ, রাগ বানানো, কবিতায় গল্প বলা। 

উত্তর – পটগুলটিশ – লেখিকা পুণ্যলতা চক্রবর্তী ছোটবেলায় তার পিসতুতো, খুড়তুতো, জ্যাঠাতুতো, ভাই-বোনদের সাথে ছাদে একপাশে জমা করে রাখা গঙ্গা মাটি দিয়ে গোলাগুলি তৈরি করতেন। যুদ্ধ-যুদ্ধ খেলার জন্য কাদার তৈরি ওই বস্তুগুলিকে পটগুলটিশ বলা হত। 

রাগ বানানো – লেখিকা পুণ্যলতা চক্রবর্তীর ছোটবেলার এক মজার খেলা হল রাগ বানানো। অপছন্দের লোকটির সম্বন্ধে অদ্ভুত গল্প বানিয়ে তাকে নাকাল করা হতো।  সেই সঙ্গে লোকটির বোকামির ঘটনা কল্পনা করে মজাও করা হতো। 

কবিতায় গল্প বলা – লেখিকা পুণ্যলতা চক্রবর্তীর ছোটবেলার এক মজার খেলা হল ‘ কবিতায় গল্প বলা ‘  একটা জানা গল্প নিয়ে এক  একজন এক একটি লাইন বানিয়ে বলতো। এইভাবে ঐ গল্পটি শেষ করা হতো। 

২.৫ ) ‘ মালগাড়ি ‘ কবিতায় কথক এর মালগাড়ি হতে চাওয়ার তিনটি কারণ নির্দেশ করো। 

উত্তর – ‘ মালগাড়ি ‘ কবিতায় কথক এর মালগাড়ি হতে চাওয়ার তিনটি কারণ হলো – 

i ) তাদের সঠিক সময়ে গন্তব্যে পৌঁছান এবং ছাড়ার তারা থাকে না। 

ii ) মালগাড়ির যাত্রী নামানো বা তোলার কোনরকম ব্যবস্থা নেই। 

iii ) মালগাড়ি তার নিজের ইচ্ছা মত চলে। 

২.৬ ) ‘ বিচিত্র সাধ ‘ কবিতায় শিশুটির মনে কিভাবে বিচিত্র সাধ জেগে ওঠে ?

উত্তর – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘ বিচিত্র সাধ ‘ কবিতায় শিশুটি রাতে জানালা খুলে দেখে যে, পাগড়ি পড়ে পাহারা ওয়ালা গলি দিয়ে যায়।  সে হাতে একটি লণ্ঠন ঝুলিয়ে বাড়ির দরজায় দাঁড়িয়ে থাকে।  রাত যখন দশটা এগারটা হয় তখন রাস্তার গলিতে কেউ থাকেনা।  শিশুটির ইচ্ছা হয় পাহারা ওয়ালা হয়ে গলির ধারে আপন মনে জেগে থাকতে। 

৩ ) নির্দেশ অনুসারে নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও 

৩.১ ) নিচের বাক্যগুলি থেকে সন্ধিপদ পদ খুঁজে নিয়ে সন্ধি বিচ্ছেদ করো 

৩.১.১ ) সমুদ্রের একটি নাম রত্নাকর। 

উত্তর – রত্নাকর =  রত্ন + আকর। 

৩.১.২ ) আমাদের বিদ্যালয় আমাদের গর্ব। 

উত্তর – বিদ্যালয় = বিদ্যা + আলয়। 

৩.১.৩ ) তোমার দায়িত্ব সকলকে স্বাগত জানানো। 

উত্তর – স্বাগত = সু + আগত। 

৩.১.৪ )  রমেশ শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের একটি বিখ্যাত চরিত্র। 

উত্তর – রমেশ = রমা + ঈশ। 

৩.১.৫ ) সকলের মতৈক্য হওয়া সম্ভব নয়

উত্তর – মতৈক্য = মত + ঐক্য। 

৩.২ ) সন্ধি করো 

৩.২.১ ) সুধী + ইন্দ্র = সুধীন্দ্র। 

৩.২.২ ) দাম + উদর = দামোদর। 

৩.২.৩ ) পূর্ণ + ইন্দু = পূর্ণেন্দু। 

৩.২.৪ ) দিবস + অন্ত = দিবসান্ত। 

৩.২.৫ ) বন + ওষধি = বনৌষধি। 

৩.৩ ) টিকা লেখো

৩.৩.১ ) স্বরধ্বনি 

উত্তর – যে ধ্বনি উচ্চারণের সময় শ্বাসবায়ু বাকযন্ত্রের কোথাও বাধা পায় না এবং অন্য ধ্বনির সাহায্য ছাড়াই উচ্চারিত হয় তাকে স্বরধ্বনি বলে। যেমন – অ, ই, এ ইত্যাদি। 

৩.৩.২ ) ব্যাঞ্জনধ্বনি 

উত্তর – যে ধ্বনি উচ্চারণের সময় শ্বাসবায়ু বাকযন্ত্রের কোথাও না কোথাও বাধা পায়  এবং অন্য ধ্বনির সাহায্য নিয়ে উচ্চারিত হয় তাকে  ব্যাঞ্জনধ্বনি বলে।  যেমন – ক, ব, চ ইত্যাদি।  


আরও দেখো –

Class 4 English New Task Part 7


New Model Activity Task Class 4 English 2021

তুমি আগে Model Activity Task Class 4 English এর উত্তরগুলো নিজে করার চেষ্টা করো । তারপর নিচে দেওয়া ভিডিওটি দেখে সমস্ত প্রশ্ন উত্তর ভালো করে বুঝে নাও ।

ভিডিওটি ইউটিউব এ দেখো – ক্লিক করো

New Model Activity Task Class 4 Poribesh 2021

১ ) ঠিক উত্তর নির্বাচন করো 

১.১ ) কাঁটা আছে এমন উদ্ভিদের একটি উদাহরণ হল – 

উত্তর – ফনিমনসা। 

১.২ ) উঁচু পাহাড়ে ওঠার সময় সিলিন্ডারে যে গ্যাস ভরে নিয়ে যাওয়া হয় সেটি হল – 

উত্তর – অক্সিজেন।  

১.৩ ) পৃথিবী থেকে হারিয়ে যাওয়া একটি প্রাণীর নাম হল  – 

উত্তর – ডোডো। 

২ ) শূন্যস্থান পূরণ করো 

২.১ ) সাঁতার কাটার জন্য হাঁসের পায়ের আঙুলগুলো _________ 

উত্তর – জোড়া।

২.২ ) বাটখারা দিয়ে কোন জিনিসের __________ মাপা হয়। 

উত্তর – ওজন। 

২.৩ ) _________  থেকে বেরোয় লালারস। 

উত্তর – লালাগ্রন্থি। 

৩ ) একটি বা দুটি বাক্যে উত্তর দাও 

৩.১ ) কি করে চাল থেকে ধানের খোসা কে আলাদা করবে ?

উত্তর –  ঢেঁকি বা হলার মেশিন ব্যবহার করে চাল থেকে ধানের খোসাকে আলাদা করব। 

৩.২ ) ফুসফুস ভালো রাখার উপায় কি কি ?

উত্তর – ফুসফুস ভালো রাখার উপায়গুলি হল – i ) নিয়মিত শ্বাসের ব্যায়াম করতে হবে  ii ) মুক্ত বাতাসে ছোটাছুটি ও খেলাধুলা করতে হবে  iii ) ধোয়া ধুলোর থেকে দূরে থাকতে হবে। 

৪ ) দুটি বা তিনটি বাক্যে উত্তর দাও

৪.১ ) ‘ বর্তমানে বিভিন্ন প্রাণীর বাসস্থান বিপন্ন ‘ – কেন এমন হচ্ছে বলে তোমার মনে হয় ?

উত্তর – বর্তমানে বিভিন্ন প্রাণীর বাসস্থান বিপন্ন কারণ  – i ) মানুষ জঙ্গল কেটে ফেলছে।  ii ) প্রাণীদের খাবার ও জলের অভাব দেখা দিচ্ছে।  iii ) মানুষ জলাভূমি বন্ধ করে ফেলছে।   iv ) বর্তমানে ফসলের জমিতে সার ও কীটনাশক ব্যবহৃত হয় এর ফলে বহু পাখি ও প্রাণী মারা যাচ্ছে।   v ) বিভিন্ন প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে প্রাণীদের বাসস্থান বিপন্ন হচ্ছে। 

New Model Activity Task Class 4 Math 2021

তুমি আগে Model Activity Task Class 4 Math এর উত্তরগুলো নিজে করার চেষ্টা করো । তারপর নিচে দেওয়া ভিডিওটি দেখে সমস্ত প্রশ্ন উত্তর ভালো করে বুঝে নাও ।

ভিডিওটি ইউটিউব এ দেখো – ক্লিক করো

খুব তাড়াতাড়ি ভিডিওটি এখানে দেওয়া হবে ।

New Model Activity Task Class 4 Health and Physical Education / স্বাস্থ্য ও শারীরশিক্ষা 2021

তুমি আগে Model Activity Task Class 4 স্বাস্থ্য ও শারীরশিক্ষা এর উত্তরগুলো নিজে করার চেষ্টা করো । তারপর নিচে দেওয়া pdf টি দেখে সমস্ত প্রশ্ন উত্তর ভালো করে বুঝে নাও ।

Pdf টি ডাউনলোড করার জন্য নিচে দেওয়া লিঙ্কে ক্লিক করো ।

স্বাস্থ্য ও শারীরশিক্ষাDownload Question
স্বাস্থ্য ও শারীরশিক্ষাDownload Answer
ক্লাস IV মডেল আক্টিভিটি টাস্ক স্বাস্থ্য ও শারীরশিক্ষা

Model Activity Task Class 4 All Part 2021 | Class 4 Model Activity Task Part 6 Part 5 Part 4 Answer 2021 |

তোমরা সকলে বাড়িতে মন দিয়ে পড়াশুনা করো।  আর রাজ্য সরকারের নিয়মকানুন মেনে চলো।  

আমি এই পোস্টটিতে তোমার সাথে শেয়ার করেছি [ 4th series ] Model Activity Task Class 4 Part 7 October 2021 | Class 4 Model Activity Task Part 7 Answer 2021 | 4th Part Class IV Model Activity Task All Subject Answer 2021 |

New Model Activity Task Class 4 Bengali 2021 Part 7 Part 6 Part 5 Part 4 | New Model Activity Task Class 4 English 2021 | New Model Activity Task Class 4 Poribesh 2021 | New Model Activity Task Class 4 Math 2021 | Class IV মডেল আক্টিভিটি টাস্ক স্বাস্থ্য ও শারীরশিক্ষা |

আশা করি এই পোস্টটি তোমার অনেক উপকারে এসেছে। 

এই পোস্টটি তোমার উপকারে আসলে বন্ধুবান্ধবের সাথে শেয়ার করার অনুরোধ রইল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here