Class 8 Model Activity Task Bengali Part 7 October 2021

1943
Class 8 Model Activity Task Bengali 2021
সরকারি সুবিধা,সরকারি প্রকল্প, শিক্ষামূলক পোস্ট,সমস্ত ধরনের অফার,ইনকাম সম্পর্কিত পোস্ট (Online Shikkha Site টেলিগ্রাম চ্যানেলে যুক্ত হন )Click Here

Class 8 Model Activity Task Bengali Part 7 October 2021 | মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক Class 8 বাংলার উত্তর | Model Activity Task Class 8 Bengali Part 7 Part 6 Part 5 Part 4 Answer 2021 |

তোমরা যারা ক্লাস VIII এ পড়াশুনা করছো , তোমাদের জন্য এই বছর অর্থাৎ অক্টোবর মাসে বাংলার যে নতুন ( ২০২১ সাল ) Model Activity Task দেওয়া হয়েছে। তার সমস্ত উত্তর এখান থেকে দেখে নাও ।

[ 4th Series 2021 ] Model Activity Task Class 8 Bengali Part 7 October

১ ) নিচের প্রশ্নগুলির উত্তর দাও । 

১.১ ) ‘… তুমি তাহার পাশে এসে দাঁড়াও । ‘ – কার প্রতি কবির এই আহ্বান ? কার পাশে, কিভাবে এসে দাঁড়াতে হবে বলে কবি জানিয়েছেন ? 

উঃ – ‘ দাঁড়াও ‘ কবিতায় মানবিকবোধসম্পন্ন কবি শক্তি চট্টোপাধ্যায় এই আহ্বান করেছেন সকল মানবজাতির প্রতি । 

অসহায়, নিপীড়িত, লাঞ্ছিত একাকী মানুষের পাশে, অসহায়ের সহায় হয়ে, বন্ধুর মতো অথবা মনুষ্যত্ব নিয়ে দাঁড়াতে হবে বলে কবি জানিয়েছেন । 

১.২ ) ‘ রমেশ কহিল তুমি অত্যন্ত হীন এবং নীচ । ‘ – কাকে রমেশ একথা বলেছে ? তার একথা বলার কারণ কি ? 

উঃ – শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের ‘ পল্লীসমাজ ‘ রচনাতে রমেশ একথা বলেছে রমাকে । 

গ্রামের একশো বিঘা জমি জলমগ্ন হয়ে পড়েছে । জমিদার বেনি ঘোষাল এবং রমা তাদের পুকুরের মাছের ক্ষতির জন্য জমির জল বার করতে দিতে চাইছিল না । রমেশ আশা করেছিল চাষীদের বাচাঁতে বাধঁ কাটায় নিশ্চয়ই রমার মত থাকবে । কিন্তু রমা সোজাসোজি জানিয়ে দেয়, অতগুলো টাকা লোকসান করে তার বাধঁ কাটায় মত নেই । রমাকে রমেশ এত নিষ্ঠুর ও নিজ মনোবৃত্তির বলে কখনোই ভাবেনি’।  চিরকাল তাকে উদার প্রকৃতির মনে করে এসেছে । তাই রমেশ আলোচ্য মন্তব্যটি করেছে । 

১.৩ ) ‘ একটা স্ফুলিঙ্গ হীন ভিজে বারুদের স্তূপ । ‘ – কাদের সম্পর্কে, কেন একথা বলা হয়েছে ?  

উঃ – অচিন্ত্যকুমার সেনগুপ্তের ‘ ছন্নছাড়া ‘ কবিতায়  ‘ একটা স্ফুলিঙ্গ হীন ভিজে বারুদের স্তূপ ‘ বলতে রাস্তায় আড্ডা দেওয়া একদল ছন্নছাড়া শিক্ষিত বেকার যুবকের কথা বলা হয়েছে । 

কবি বলতে চেয়েছেন তাদের মধ্যে আগুনের স্ফুলিঙ্গ অর্থাৎ জ্বলে ওঠার সম্ভাবনা ছিল কিন্তু সমাজ পরিস্থিতি তাদের আশাই জল ঢেলে দিয়েছে । তারা আজ সমাজের উচ্ছিষ্ট পরিণত হয়েছে । পরিস্থিতি তাদের একটা স্ফুলিঙ্গ হীন ভিজে বারুদের স্তূপে পরিণত করেছে । 

১.৪ ) ‘ আমাদের দৃষ্টি হইতে দূরে গেল বটে, কিন্তু বিধাতার দৃষ্টির বাইরে যাই নাই ‘ – কোন প্রসঙ্গে প্রাবন্ধিক এই মন্তব্যটি করেছেন ? বিধাতার দৃষ্টির বাইরে যাই নাই – এ কথার তাৎপর্য কি ? 

উঃ – ‘ গাছের কথা ‘ প্রবন্ধে প্রাবন্ধিক জগদীশচন্দ্র বসু একটি ক্ষুদ্র বীজের ধুলো ও মাটিতে ঢাকা পড়া প্রসঙ্গে এই মন্তব্যটি করেছেন । 

একটি বীজে অনেক সময় ভাঙা ইট অথবা মাটির নিচে লুকিয়ে থাকে । কেউ না দেখলেও সেটি বিধাতা বা প্রকৃতির দৃষ্টির বাইরে যায় না । কিছু দিন পর্যন্ত সেটি বীজের কঠিন আবরণে ঘুমিয়ে থাকে । যথাসময়ে সেটি থেকে অঙ্কুর বের হয় এবং একটি বৃক্ষ শিশুর জন্ম হয় । 

১.৫ ) ‘ রৌদ্রে যেন ভিজে বেদনার গন্ধ লেগে আছে ‘ – কোন কবিতার অংশ ? কবির মনে এমন অনুভূতি জেগেছে কেন ? 

উঃ – উদ্ধৃতিটি প্রকৃতি প্রেমী কবি জীবনানন্দ দাশের ‘ পাড়াগাঁর দু পহর ভালোবাসি ‘ কবিতার অংশ । 

প্রকৃতি প্রেমিক কবি হলেও জীবনানন্দ দাশ তাঁর এই কবিতায় এক প্রচ্ছন্ন দুঃখের ইঙ্গিত দিয়েছেন ।  দুপুরবেলায় সমস্ত প্রকৃতি নিস্তব্ধ থাকে । দেখে মনে হয় প্রকৃতি যেন শোক যাপন করছে । শঙ্খচিলের চিৎকার, জলসিঁড়ির পাশে নৌকা, বুনো চালতার ছায়া সবকিছুই এর ইঙ্গিত বহন করে । 

২ ) নির্দেশ অনুসারে নিচের ব্যাকরণগত প্রশ্নগুলির উত্তর দাও । 

২.১ ) বাক্যের মধ্যে ক্রিয়াপদটি কিভাবে গঠিত হয় ? 

উঃ – ধাতুর সঙ্গে ক্রিয়া বিভক্তি যুক্ত হয়ে বাক্যের মধ্যে ক্রিয়াপদটি গঠিত হয় । 

২.২ ) আপেক্ষিক ভাবের একটি উদাহরণ দাও । 

উঃ –  যদি তোর ডাক শুনে কেউ না আসে তবে একলা চলোরে । 

২.৩ ) নিত্যবৃত্ত অতীত বলতে কী বোঝো ? 

উঃ – অতীতে প্রায়ই ঘটত – এই অর্থে ক্রিয়ার যে কাল হয় তাকে নিত্যবৃত্ত অতীত বলা হয় । যেমন – সে প্রতিদিন বাগানে ফুল তুলত। 

২.৪ ) ২.৫ )  উঃ – নিচের ছবি থেকে উত্তরটি দেখে নাও – 

Class 8 Model Activity Task Bengali Part 7 October 2021
Class 8 All Subject All Part 2021 [ October ] Answer Pdf

আরও দেখো ক্লিক করে –

Class 8 Poribesh October Task Answer

Class 8 History October Task Answer

Class 8 Geography October Task Answer

4th Series Class 8 Bengali | Class 8 Bengali Task Part 7 2021 | Class 8 Bengali Task October 2021 |

Model Activity Task Class 8 Bengali Part 4 2021

১ ) ঠিক উত্তরটি বেছে নিয়ে লেখো 

১.১ ) _______ বিষয়ে পৃথিবীতে কোন জাতিই আরবদিগের তুল্য নহে।  

উত্তর – অতিথিয়েতা।  

১.২ ) ‘ আমার কাছে কিরূপ আচরণ প্রত্যাশা করো ? ‘ – বক্তা হলেন – 

উত্তর – সেকেন্দার। 

১.৩ ) ‘ পশ্চিমে কুন্দরুর তরকারি দিয়ে ঠেকুয়া খায়। ‘ –  টেনিদাকে একথা বলেছে – 

উত্তর – ক্যাবলা। 

১.৪ ) মাইকেল মধুসূদন দত্ত যেই জাহাজ থেকে তার বন্ধু গৌড়দাস বসাককে চিঠি লিখেছিলেন, সেটির নাম – 

উত্তর –  সিলোন। 

২ ) নীচের প্রশ্নগুলির সংক্ষিপ্ত উত্তর দাও 

২.১ ) ‘ মান্ধাতারই আমল থেকে / চলে আসছে এমনি রকম ‘ – কোন প্রসঙ্গে কবি একথা বলেছেন ?

উত্তর – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘ বোঝাপড়া ‘ কবিতায় উদ্ধৃত অংশটি রয়েছে।  এই কথাটির মাধ্যমে কবি বোঝাতে চেয়েছেন পৃথিবীর কোন মানুষই সকলের কাছে প্রিয় হয়ে উঠতে পারে না। আবার সকলে সবকিছু পাইনা। কেউ বেশি পায়, আবার কেউ কম পায়। কেউ তোমাকে ফাঁকি দেবে, তুমিও আবার কাউকে ফাঁকি দেবে। মান্ধাতার আমল থেকেই এইরকম চলে আসছে।

২.২ ) ‘ আমা অপেক্ষা আপনকার ঘোরতর বিপক্ষ আর নাই। ‘ – বক্তার একথা বলার কারণ কি ?

উত্তর – উপরোক্ত বক্তব্যটি ইশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের ‘ অদ্ভুত অতিথিয়তা ‘ নামুক রচনায় আরব সেনাপতি মুরসেনাপতিকে বলেছিলেন।  আরব সেনাপতি ও মুর সেনাপতির মধ্যে কথোপকথন চলছিল। পূর্বপুরুষদের পরাক্রম ও যুদ্ধকৌশলের নানা পরিচয় উঠে আসে দুজনের আলাপচারিতার মাধ্যমে।  আরব সেনাপতি জানতে পারেন এই আশ্রয়প্রার্থী মুরসেনাপতির নির্দেশেই তার পিতাকে হত্যা করা হয়েছিল।  কিন্তু বর্তমানে মুরসেনাপতি তার অতিথি।  তার কোন ক্ষতি তিনি করবেন না।  তাই পরদিন সকালে মুরসেনাপতিকে প্রস্থানের উপযুক্ত ব্যবস্থা করে দিয়ে আরব সেনাপতি একথা বলেছিলেন। 

২.৩ ) ‘ অ্যান্টিগোনাস ! তোমার এই ঔদ্ধত্যের জন্য তোমায় আমার সাম্রাজ্য থেকে নির্বাচিত কলাম। ‘ –  অ্যান্টিগোনাস কেন ঔদ্ধত্য দেখিয়েছে ?

উত্তর – দ্বিজেন্দ্রলাল রায় রচিত ‘ চন্দ্রগুপ্ত ‘ নাটকে সেনাপতি অ্যান্টিগোনাস গুপ্তচর সন্দেহে চন্দ্রগুপ্তকে সম্রাট সেকেন্দারের কাছে নিয়ে আসে। এরপর কথোপকথনের মাধ্যমে জানা যায় গ্রিক সেনাপতি সেলুকাস সরল বিশ্বাসে চন্দ্রগুপ্তকে যুদ্ধকৌশল শিক্ষা দিয়েছেন। কিন্তু এই নিয়ে দুই সেনাপতি সেলুকাস ও অ্যান্টিগোনাস এর মধ্যে বিবাদ সৃষ্টি হয়।  এমনকি অ্যান্টিগোনাস সেলুকাসের ওপর তরবারি নিক্ষেপ করেন।  এইসব ঘটনা ঘটে সম্রাট সেকেন্দারের সামনে। তাই সম্রাট সেকেন্দার অ্যান্টিগোনাস এর এই কার্যকলাপকে ঔদ্ধত্য বলে মনে করেছিলেন। 

২.৪ ) ‘ তোদের মত উল্লুখের সঙ্গে পিকনিকের আলোচনাও ঝকমারি ! ‘ –  কোন কথা প্রসঙ্গে টেনিদা এমন মন্তব্য করেছিল ?

উত্তর – নারায়ন গঙ্গোপাধ্যায় রচিত ‘ বনভোজনের ব্যাপার ‘ গল্পটিতে বনভোজনের খাদ্যতালিকায় – পোলাও, ডিমের ডালনা, রুই মাছের কালিয়া,মাংসের কোরমা প্রভৃতির কথা উঠছিল। এরই মাঝে আলু ভাজা, সুপ্ত, কুমড়োর ছক্কা এর মত দেশি খাদ্যের কথা ওঠে। ক্যাবলা জুড়ে দেয় কুদরির তরকারি দিয়ে ঠেকুয়া। এতো স্বাদের খাবারের মধ্যে এই খাবারগুলোর কথা শুনে টেনিদা মাথা গরম করে উপরোক্ত মন্তব্যটি করেছিল।  

২.৫ ) ‘ কৌতুহলী দুই চোখ মেলে অবাক দৃষ্টিতে দেখে ‘ –  চড়ুই পাখির চোখে কৌতুহল কেন ?

উত্তর – কবি তারাপদ রায়ের ‘ একটি চড়ুই পাখি ‘ কবিতায় চড়ুই পাখির চোখে কৌতুহল থাকার অন্যতম কারণ হলো কবির বাড়ির নির্জনতা।  সাধারণত প্রত্যেক বাড়িতে একাধিক মানুষ থাকে। একজন বাইরে বেরিয়ে গেলে অপরজন বাড়ি দেখাশোনা করে।কিন্তু কবির বাড়িতে তা হয় না।  চড়ুইটি ভাবে এই বাড়ির জানালা, টেবিল, ফুলদানি সব কবির অনুপুস্থিতিতে তার হয়ে যাবে। 

৩ ) নীচের প্রশ্নগুলির উত্তর নিজের ভাষায় লেখো 

৩.১ ) ‘ সবুজ জামা ‘ কবিতার ভাববস্তু আলোচনা করো। 

উত্তর – কবি বীরেন্দ্র চট্টোপাধ্যায় ‘ সবুজ জামা ‘ কবিতায় সহজ-সরল প্রকৃতিপ্রেমী তোতাই নামক এক শিশুর কথা তুলে ধরেছেন। সে চার দেওয়ালে আবদ্ধ থেকে পড়াশোনা করতে চায় না।  সে মুক্তমনে প্রকৃতিকে অনুভব করতে চায়।  বুড়ো দাদুর মত চশমা দিয়ে সে জগত দেখতে চাই না।  সভ্যতার নকল মুখোশ খুলে সহজ স্বাভাবিকভাবে বাঁচতে চায়। সে সবুজ গাছের মতো জামা পরতে চায়, যেখানে অনেক প্রজাপতি এসে বসবে।  এই কবিতায় যান্ত্রিক সভ্যতার জটিলতা থেকে বেরিয়ে এসে প্রকৃতির কোলে সরলভাবে জীবনযাপনের বার্তা দেওয়া হয়েছে। 

৩.২ ) বন্ধু রাজনারায়ন বসুকে লেখা চিঠিতে মাইকেল মধুসূদন দত্ত তাঁর লেখা ‘ মেঘনাদবধ ‘ কাব্য সম্পর্কে কীরূপ অভিমত ব্যক্ত করেছেন ?

উত্তর – রাজনারায়ণ বসুকে লেখা চিঠিতে মধুসূদন দত্ত ‘ মেঘনাথবধ ‘ কাব্য সম্পর্কে মতামত ব্যক্ত করতে অনুরোধ জানিয়েছেন। ৭৫০ লাইনে কাব্যের ষষ্ঠ সর্গ শেষ হয়েছে মেঘনাথ এর মৃত্যুর মধ্য দিয়ে।  সেকথাও তিনি লিখেছেন। মেঘনাথকে মারতে তার অনেক কষ্ট হয়েছে এমনকি তিনি কান্নাও করেছেন।  এই কাব্য ইতিমধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। এছাড়াও বলেছেন অনেক হিন্দু মহিলা এ কাব্য পড়ে কেঁদে ফেলেছেন। তাই তিনি রাজনারায়ণ বসু মহাশয়ও যেন তার স্ত্রীকে এই বইটি পড়ার ব্যবস্থা করে দেন। 

৩.৩ ) ‘ পরবাসী ‘কবিতায় শেষ চারটি পংক্তিতে কবির প্রশ্ন বাচক বাক্য ব্যবহার করার তাৎপর্য বিশ্লেষণ করো। 

উত্তর – ‘ পরবাসী ‘ কবিতায় কবি বিষ্ণুদে যেমন সুন্দর বন, জঙ্গল, প্রাকৃতিক পরিবেশের অসাধারণ বর্ণনা দিয়েছেন। ঠিক তেমনি শেষের চারটি লাইনে একাধিক প্রশ্ন রেখেছেন।  তিনি ক্ষুব্ধ হয়েছেন প্রকৃতিকে নিয়ে মানুষের এমন ব্যবহারের জন্য।  তিনি প্রশ্ন করেছেন – বন-জঙ্গল, প্রকৃতি ধ্বংসের বিরুদ্ধে মানুষ রুখে দাঁড়াচ্ছে না কেন ? মানুষ কেন চুপ রয়েছে ? গাছপালা প্রকৃতির কি কোন মূল্য নেই ? তাদের কেন এত নগণ্য মনে করা হয় ? মানুষ যেন এক স্থান থেকে অন্য স্থানে তাবু বয়ে নিয়ে বেড়াচ্ছে। কিন্তু নিজের বাসভূমি, নিজের ঘর বানাতে পারছে না। তাই কবি শেষ চারটি পংক্তিতে এমন প্রশ্নবাচক বাক্য ব্যবহার করেছেন। 

৩.৪ ) ‘ _কিন্তু এই রাতটির কথা ভালোভাবেই আমার মনে আছে। ‘ – ‘ পথচলতি ‘ রচনা অনুসরণে লেখকের সেই রাতের অভিজ্ঞতার বিবরণ দাও। 

উত্তর – সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায় ‘ পথচলতি ‘ গদ্যাংশে গয়া থেকে দেরাদুন এক্সপ্রেসে চেপে কলকাতা ফেরার কাহিনী বর্ণনা করেছেন। প্রথমে তিনি বুদ্ধি করে পাঠান যাত্রীদের সংরক্ষন করা থার্ডক্লাসে নিজের স্থান করে নেন এবং তাদের সাথে সম্পর্ক স্থাপনের জন্য গল্পগুজব শুরু করেন।  তারপর খুশ – হাল – খাঁ খট্টকের গজলের প্রসঙ্গে পশতু সাহিত্য গোষ্ঠী বা সম্মেলন শুরু হয়। লেখকের আগ্রহে জনৈক যাত্রী গজল শোনান।  এরপর হলো আদম খান আর দূর খানের মহব্বত এর কথা।  শুধু লেখকই নন, গাড়ির সমস্ত যাত্রীরা অবধারিতভাবে মন দিয়ে সেই কাহিনী শুনলেন। পাঠানের বলা যদিও কর্কশ, তবুও সে  গুরুগম্ভীর ভাবে কাহিনীটি কিছুটা গান করে, আবার কিছুটা পাঠ করে সবাইকে আনন্দ দিলেন।  এভাবে সেই তৃতীয় শ্রেণীর কামরায় গান, আবৃত্তি ও পাঠের যেন এক পশতু সাহিত্য গোষ্ঠী বা সম্মেলন হলো।  সেই রাতের কথা লেখকের ভালোভাবেই মনে ছিল। 

৪ ) নির্দেশ অনুসারে উত্তর দাও 

৪.১ ) দল বিশ্লেষণ করে দল চিন্নিত করো 

ইস্টিশান = ইস – টি – শান ( রুদ্ধ – মুক্ত – রুদ্ধ ) – তিনটি দল। 

বাগুইআটি – বা – গুই – আ – টি ( মুক্ত – রুদ্ধ – মুক্ত – রুদ্ধ ) – চারটি দল। 

দর্শনামাত্র – দর – শন – মা – র ( রুদ্ধ – রুদ্ধ – রুদ্ধ – মুক্ত ) চারটি দল। 

ক্ষিপ্প্রহস্ত – ক্ষিপ্ – রো – হস – ত ( রুদ্ধ – মুক্ত – রুদ্ধ – মুক্ত ) চারটি দল। 

৪.২ ) উদাহরণ দাও 

মধ্যস্বরাগম – 

রত্ন >রতন ( যুক্ত ব্যঞ্জন ধ্বনির মধ্যে স্বরধ্বনির আগমন )

র্ – অ – ৎ – ন – অ > র – অ – ত – অ – ন – অ

স্বরভক্তি – 

ধর্ম > ধরম

অন্তস্থ য় – শ্রুতি – 

চা – এর > চায়ের

অন্তস্বরলোপ – 

রাশি > রাশ

অনোন্য স্বরসংগতি

শহরিয়া > শহুরে

যার কর্ম তার সাজে, অন্য লোকে লাঠি বাজে 

উত্তর – যার যে কাজ সে কাজ তাকেই মানায়, অন্য করতে গেলে নানা বিড়ম্বনা সৃষ্টি হয়। 

নুন আনতে পান্তা ফুরোয় 

উত্তর – চরম অভাব ও দারিদ্র্যের মধ্য দিয়ে দিন যাপন করা। 

গেঁয়ো যোগী ভিখ পায় না। 

উত্তর -কাজের জনের গুণের কদর হয় না। 

মারি তো গন্ডার, লুটি তো গন্ডার। 

উত্তর – বড় কোন কাজের পরিকল্পনা। 

এক হাতে তালি বাজে না। 

উত্তর – উভয় পক্ষের দোষ থেকে বিবাদ। 

New Class 8 Model Activity Task English Part 4 2021

তুমি আগে Model Activity Task Class 8 English এর উত্তরগুলো নিজে করার চেষ্টা করো । তারপর নিচে দেওয়া ভিডিওটি দেখে সমস্ত প্রশ্ন উত্তর ভালো করে বুঝে নাও ।

ভিডিওটি ইউটিউব এ দেখো – ক্লিক করো

খুব তাড়াতাড়ি ভিডিওটি এখানে দেওয়া হবে ।

Class 8 Model Activity Task Bengali, English New 2021 Pdf Download

BengaliDownload Pdf
EnglishDownload Pdf
lass 8 Model Activity Task Bengali, English New 2021 Pdf Download

তোমরা সকলে বাড়িতে মন দিয়ে পড়াশুনা করো।  আর রাজ্য সরকারের নিয়মকানুন মেনে চলো।  

Class 8 Model Activity Task Bengali Part 7 October 2021 | মডেল অ্যাক্টিভিটি টাস্ক Class 8 বাংলার উত্তর | Model Activity Task Class 8 Bengali Part 7 Part 6 Part 5 Part 4 Answer 2021 |

আশা করি এই পোস্টটি তোমার অনেক উপকারে এসেছে। 

এই পোস্টটি তোমার উপকারে আসলে বন্ধুবান্ধবের সাথে শেয়ার করার অনুরোধ রইল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here